নতুন পদের প্রস্তাবসহ সংশোধিত এমপিও নীতিমালার খসড়া অর্থ মন্ত্রণালয়ে -

নতুন পদের প্রস্তাবসহ সংশোধিত এমপিও নীতিমালার খসড়া অর্থ মন্ত্রণালয়ে

SS iT Computer
বেসরকারি স্কুল-কলেজ এমপিওভুক্তির নতুন নীতিমালা জারি করতে যাচ্ছে সরকার। সংশোধিত নীতিমালার কিছু নতুন পদ সৃষ্টির প্রস্তাব করা হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির অনুমোদনের পর নীতিমালার চূড়ান্ত খসড়া অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। নতুন নীতিমালায় কিছু পদ সৃষ্টির প্রস্তাব করা হয়েছে। তাই, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের পর বেসরকারি স্কুল-কলেজের এমপিও নীতিমালা জারি করবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নতুন নীতিমালার বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তারা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, নীতিমালার খসড়ায় কিছু নতুন পদ সৃষ্টির প্রস্তাব করা হয়েছে। নতুন পদ সৃষ্টির প্রস্তাব থাকায় সংশোধিত নীতিমালার চূড়ান্ত খসড়াটি শিক্ষামন্ত্রীর অনুমোদনের পর অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের চূড়ান্ত অনুমোদনের পর নতুন নীতিমালা জারি করা হতে পারে। যদিও, সংশোধিত নীতিমালার খসড়ায় নতুন কি পদ সৃষ্টি হচ্ছে জানতে চাইলে কোন মন্তব্য করতে চাননি কর্মকর্তারা।

এদিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একাধিক সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানিয়েছে, আগের নীতিমালা সহজ করেই এটি করা হয়েছে। এতে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির শর্তাবলিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। পাসের হারের শর্তে এবার কিছুটা ছাড় দেয়া হয়েছে। শিক্ষার্থীর সংখ্যা আবার বাড়িয়ে দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের ১২ জুন জারি করা এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামোতে সংশোধনী এনে নতুন এ নীতিমালার খসড়া চূড়ান্ত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রস্তাবিত সংশোধনীসহ নথি অনুমোদন দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। নতুন এ নীতিমালায় বেসরকারি শিক্ষকদের অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ পাওয়ার ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতা পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে সূত্র।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ সূত্র জানায়, চলতি অর্থবছরে এমপিওভুক্তির সম্ভাবনা কম হলেও নতুন নীতিমালা জারির পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির আবেদন গ্রহণ শুরু করা হতে পারে। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আশা করছি শিগগিরই সংশোধিত নীতিমালা জারি করা হবে। পরিমার্জিত নীতিমালা জারির পর নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির আবেদন নেয়া হবে। চলতি অর্থবছরে হয়তো নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত সম্ভব নাও হতে পারে। কিন্তু আগামী অর্থবছরে কাজটি শেষ করা যাবে।

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

বাছাইকৃত সংবাদঃ

Comments are closed.