গত বছর পাস করা শিক্ষার্থীরাও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দিতে পারবে -

গত বছর পাস করা শিক্ষার্থীরাও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দিতে পারবে

SS iT Computer
করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় এ বছর গুচ্ছভুক্ত ২০টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় ২০২০ সালের পাশাপাশি আগের বছর ২০১৯ সালের এইচএসসি পাস শিক্ষার্থীরাও অংশ নিতে পারবেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার ২০টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সভাকক্ষে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে আরো সিদ্ধান্ত হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদনে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কোনো ফি নেওয়া হবে না। দ্বিতীয় ধাপে নির্বাচিত হওয়ার পর ৫০০ টাকা ফি দিয়ে পরীক্ষায় বসতে হবে। এ ছাড়া করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ন্যূনতম যোগ্যতা থাকা সব শিক্ষার্থীই প্রাথমিক আবেদন করতে পারবেন। গুচ্ছভুক্ত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে একযোগে যতজন শিক্ষার্থীর পরীক্ষা নেওয়ার সুযোগ রয়েছে, মেধার ভিত্তিতে ততজন শিক্ষার্থীকে চূড়ান্ত আবেদন করার সুযোগ দেওয়া হবে।

২০১৯ ও ২০২০ সালে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণরা আবেদন করতে পারবেন। ভর্তীচ্ছু আবেদনকারীর বিজ্ঞান শাখার জন্য ন্যূনতম জিপিএ ৭ (এসএসসি ও এইচএসসি মিলে), বাণিজ্য শাখার জন্য ন্যূনতম জিপিএ ৬.৫ এবং মানবিক শাখার জন্য ন্যূনতম জিপিএ ৬ থাকতে হবে। তবে প্রতি শাখায় (বিজ্ঞান/বাণিজ্য/মানবিক) এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ৩ থাকতে হবে। প্রতিটি প্রশ্নের মান হবে ১। প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা যাবে।

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

বাছাইকৃত সংবাদঃ

Comments are closed.