কে হচ্ছেন তৃতীয় ব্যক্তি হিসাবে মধুপুর পৌরসভার ৫ম মেয়র? – আজকের শিক্ষা || ajkershiksha.com

কে হচ্ছেন তৃতীয় ব্যক্তি হিসাবে মধুপুর পৌরসভার ৫ম মেয়র?

#এম.এন বাশার# রাত পোহালেই অনুষ্ঠিত হবে মধুপুর পৌরসভা নির্বাচন। ভোট গ্রহনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়ে যাবে আজ রাতের মধ্যেই। আগামিকাল ভোট গ্রহন শুরু হবে সকাল আটটায় এবং কোনও বিরতি ছাড়াই চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। নির্বাচনকে ঘিরে নানা আশঙ্কা থাকলেও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসন সুষ্ঠু নির্বাচনের নিশ্চয়তা দিয়েছেন ।অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি সামাল দিতে নেওয়া হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা।
১৯৯৫ইং সনের ২৩ ডিসেম্বর মধুপুর পৌরসভা ঘোষিত হয়েছিল। দীর্ঘ ২৬ বছর বিভিন্ন চড়াই উৎরাই পাড় করে প্রথম শ্রেনির পৌরসভা হয়েছে মধুপুর।
১৯৯৯ইং সনের ২৩ ফেব্রুয়ারি তৎকালিন তরুন ছাত্র নেতা জনাব মোঃ শহিদুল ইসলাম বিপুল ভোটে নবগঠিত মধুপুর পৌরসভার প্রথম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।
তার সুযোগ্য নেতৃত্বের কারনে তিনি ২০০৪ইং সনের ১৪ই মে দ্বিতীয় নির্বাচনে এবং ২০১১ সনের ১৭-জানুয়ারি ৩য় নির্বাচনে মধুপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।পরবর্তীতে ২০১৬ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত পৌর নির্বাচনে বিপুল ভোটে নৌকা প্রতীকে নির্বাচিত হন স্বপ্নবাজ, সুবক্তা ও তরুণ নেতা মধুপুর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেয়র মাসুদ পারভেজ।তিনি ১৯৯৯ সালে এ পৌরসভার প্রথম নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন।
২০২১ সালের ৩০শে জানুয়ারী, মধুপুর পৌরসভার মেয়র পদে নৌকা ও ধানের শীষের মধ্যে প্রতিযোগিতা সীমাবদ্ধ ।বাংলাদেশ আওয়ামিলীগ কর্তৃক মনোনিত নৌকা মার্কায় মো: সিদ্দিক হোসেন খান সাহেব। তিনি একাধারে মধুপুর শিল্প ও বনিক সমিতির সভাপতি, মধুপুর ট্রাক মালিক সমিতির সভাপতি এবং মধুপুর পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি। অপরদিকে বিএনপির তরুন নেতা ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক আব্দুল লতিফ পান্না ধানের শীষে নিয়ে মধুপুর পৌরসভার মেয়র প্রার্থী।
আগামীকাল একজন তরুনের সাথে একজন অভিজ্ঞ প্রবীণের লড়াই । ওয়ার্ড লাকি সেভেন সাথে ওয়ার্ড নাইনের লড়াই । মধুপুরের সর্বত্র এখন শুধু একটি আলোচনা । এখানে উল্লেখ্য সাবেক দুইজন সফল মেয়র সরকার শহীদ ও মাসুদ পারভেজ দুইজনই ছিলেন লাকি সেভেন ওয়ারডের বাসিন্দা । বিএনপির আব্দুল লতিফ পান্নাও একই ওয়ারডের হলেও মো: সিদ্দিক হোসেন খান সাহেব ৯নং ওয়ার্ডের।
আজ মধুপুর পৌরবাসীর আলোচ্য বিষয় – কে হচ্ছেন তৃতীয় ব্যক্তি হিসাবে ৫ম মেয়র? কে হারবে কে জিতবে? কত ভোটে জিতবে? সকল হিসাব নিকাশের প্রহর শেষ হবে মাত্র একটি দিন পরে।
আমরা সবাই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি মধুপুর পৌরসভার নতুন মেয়রকে অভিবাদন জানানোর জন্যে। আসুন আমরা সবাই ভোট দিতে যাই। ভোট আপনার অধিকার। আপনার ভোটটি নস্ট না করে ভোট কেন্দ্র গিয়ে ভোট দিন । সবার জন্য শুভ কামনা ।
আগামীকাল প্রকাশ হবে নতুন মেয়রের কাছে নতুন প্রত্যাশা!

 

Harun Rashid#mfg

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •