করোনার টিকা ছাড়াও দেওয়া যাবে এসএসসি পরীক্ষা : শিক্ষামন্ত্রী - আজকের শিক্ষা || ajkershiksha.com

করোনার টিকা ছাড়াও দেওয়া যাবে এসএসসি পরীক্ষা : শিক্ষামন্ত্রী

SS iT Computer

করোনার টিকা ছাড়াও দেওয়া যাবে এসএসসি পরীক্ষা : শিক্ষামন্ত্রী করোনা মহামারির মধ্যে অনুষ্ঠিতব্য মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা নিয়ে এক গুজব সম্পর্কে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি জানিয়েছেন, টিকা ছাড়াও পরীক্ষায় অংশ নেওয়া যাবে।

এসএসসি পরীক্ষা শুরুর দিন রোববার (১৪ নভেম্বর) সকালে মতিঝিল বয়েজ স্কুল কেন্দ্রে পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী।

পরীক্ষার আগে গুজব ছড়ানো হয়েছিল ‘টিকা ছাড়া পরীক্ষা দেওয়া যাবে না। ’ এ বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো টিকা দেওয়ার। কিন্তু তারপরও নানান প্রতিকূলতা আছে। টিকা ছাড়া পরীক্ষা দেওয়া যাবে না—এটা সঠিক নয়। যারা সুস্থ থাকবে সবাই পরীক্ষা দিতে পারবে।

শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরুর পর কত শতাংশ পরীক্ষার্থী টিকা পেয়েছে জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এখন শুধু ঢাকা শহরে দেওয়া হচ্ছে। প্রায় দেড় লাখ শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। এইচএসসিতে টার্গেট করেছি যত বেশি দেওয়া যায়। ঢাকার বাইরেও দেওয়া হবে। কিন্তু হয়তো সবাইকে দেওয়া শেষ করতে পারবো না।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, সবাইকে কাভার করা যাবে কি-না আমরা এখনও নিশ্চিত নই। কিন্তু চেষ্টা করবো। এই টিকাটি ১২-১৭ বছর বয়সীদের দেওয়া যায়। টিকা সংরক্ষণের জন্য অনেক ঠাণ্ডা তাপমাত্রার প্রয়োজন। সেই কারিগরি দিক বজায় রেখেই সব জেলায় টিকা দেওয়ার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সমন্বয় করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অভিভাবকদের প্রতি অনুরোধ

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এখন পর্যন্ত সব জায়গায় শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা চলছে। কেন্দ্রের ভেতরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নেওয়ার সব ব্যবস্থা করা হয়েছে। সমস্যা যেটা হচ্ছে, সেটা হলো বাইরে অভিভাবকরা অপেক্ষা করছেন। সেখানে অনেক ভিড়। তারা সেভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। আমরা আগেও অনুরোধ জানিয়েছিলাম, আবারও অনুরোধ করবো যাতে তারা ভিড় না করেন, জটলা না করেন। অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানে অভিভাবকদের অপেক্ষা করার জন্য ভালো ব্যবস্থা নেই। তারা যাতে এ ব্যাপারে একটু যত্নবান হন।

নতুন কারিকুলামে জেএসসি পরীক্ষা হবে কি-না প্রশ্নে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, নতুন কারিকুলাম হলে জেএসসি থাকার কথা নয়। তখন ভিন্নভাবে মূল্যায়ন করা হবে।

প্রাথমিক শিক্ষা বোর্ড গঠন নিয়ে এক প্রশ্নে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে আমরা উভয় মন্ত্রণালয় বসে কথা বলবো।

পরিদর্শনকালে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান নেহাল আহমেদসহ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

বাছাইকৃত সংবাদঃ

Comments are closed.