এইচএসসিতে পাস চেয়ে শিক্ষার্থীর রিট - আজকের শিক্ষা || ajkershiksha.com

এইচএসসিতে পাস চেয়ে শিক্ষার্থীর রিট

SS iT Computer
২০২০ খ্রিষ্টাব্দের এইচএসসি পরীক্ষায় যথাযথভাবে ফরম পূরণসহ সব কিছুই করেছিলেন তাসনিম আহমেদ নওশিন। কিন্তু ফলাফল প্রকাশিত হলেও তার নাম কেন বাদ পড়ল? দোষটা তাহলে কার? এমন সব প্রশ্নের উত্তরের পাশাপাশি ও এইচএসসি পরীক্ষায় পাসের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করেছেন তিনি।

বুধবার (৩ফেব্রুয়ারি) নওশিনের করা রিটের শুনানির দিন নির্ধারণ করতে মোশন করেন আইনজীবী মোহাম্মদ ফারুক হোসেন।

জানতে চাইলে এই আইনজীবী দৈনিক শিক্ষাকে বলেন, নওশিন পরীক্ষার যাবতীয় নিয়ম-কানুন যথাযথভাবে অনুসরণ করে ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পুরণ করেছে। পরীক্ষার প্রস্তুতিও নিয়েছে। কিন্তু করোনার কারণে সরকার ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের এইচএসসি পরীক্ষায় অটোপাস ঘোষণা করে। এই অটোপাসের মধ্যেও নওশিনের ফলাফল আসেনি শিক্ষাবোর্ডের গাফিলতি ও অবহেলার কারণে। শতভাগ পাসের সময়েও একজন শিক্ষার্থীর ফলাফল না আসায় সে ক্ষতিগ্রস্থ।

এই আইনজীবী আরও বলেন, কলেজ কর্তৃপক্ষ নওশিনের ফরম পূরণের বিষয়ে ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের ২০ অক্টোবরে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রককে চিঠি লেখেন। চিঠির যথাযথ জবাব না পাওয়ায় ডিসেম্বরে হাইকোর্টে রিট করেন নওশিন। শুনানী শেষে হাইকোর্ট নওশিনের আবেদনের বিষয়টি নিষ্পত্তির নির্দেশ দেয় শিক্ষাবোর্ডের প্রতি। আদালতের এমন আদেশের পরেও শিক্ষাবোর্ড আদেশ অমান্য করায় নওশিনের শিক্ষা জীবনের অপূরনীয় ক্ষতি হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা আশা করছি এ রিটের শুনানির জন্য দিন নির্ধারণ করা হবে। নওশিনকে এইচএসসি পরীক্ষায় পাস দেওয়ার আদেশ পাব। রিটে বিবাদী করা হয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজের অধ্যাক্ষসহ সংশ্লিষ্টদেরকে।

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

বাছাইকৃত সংবাদঃ

Comments are closed.