উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হলেও বাংলো ছাড়ছেন না মোস্তাফিজুর রহমান - আজকের শিক্ষা || ajkershiksha.com

উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হলেও বাংলো ছাড়ছেন না মোস্তাফিজুর রহমান

SS iT Computer

উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হলেও বাংলো ছাড়ছেন না মোস্তাফিজুর রহমান: ময়মনসিংহের ত্রিশালে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর (ভিসি) প্রফেসর ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমানের মেয়াদ শেষ হয়েছে গত ১৩ নভেম্বর। মেয়াদ শেষ হলেও এখনো বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি বাংলো আঁকড়ে আছেন তিনি। এ নিয়ে শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে তীব্র সমালোচনা চলছে।

জানা গেছে, ভিসির দায়িত্বকাল শেষ হওয়ার পরদিন ১৪ নভেম্বর ভারপ্রাপ্ত ভিসির দায়িত্ব পান বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর (অবসরপ্রাপ্ত) জালাল উদ্দিন। অথচ সদ্য বিদায়ী ওই ভিসি এখনো অবস্থান করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ডরমেটরিতে। এমনকি পুরোনো আসবাবপত্র দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুইটি ফ্ল্যাট এখনো দখলে রেখেছেন তিনি।

শুধু তাই নয়, ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমানের মেয়ের গৃহশিক্ষক আব্দুল বারেক গত দুই বছর ধরে ডরমিটরির একটি রুমে অবস্থান করছেন। যার ভাড়া বাবদ বিশ্ববিদ্যালয় হারিয়েছে প্রায় ২ লাখ টাকা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক সূত্র জানায়, ভিসির বাংলো বাবদ প্রতি মাসে দুই লাখ টাকা গুনতে হয় প্রতিষ্ঠানটিকে। এছাড়াও রয়েছে দুইটি গাড়ি। যার একটি নিজে ব্যবহার করতেন, আর অন্যটি তার নিজের পরিবারের জন্য। যার কোনো কিছুই এখনো হস্তান্তর করেননি সদ্য বিদায়ী ওই ভিসি। এর আগে তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে প্রফেসর ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ে এভাবে থাকার সিস্টেম আছে। তবে আমি কোনো গাড়ি ব্যবহার করি না। দুই সপ্তাহ থাকার অনুমতি চেয়েছি।’

রাষ্ট্রপতির শিক্ষা সচিবের কাছে আরও দুই সপ্তাহ বাংলোতে থাকার জন্য অনুমতি চেয়ে চিঠি দিয়েছেন সদ্য বিদায়ী ভিসি, এমনটি জানিয়ে ভারপ্রাপ্ত ভিসি প্রফেসর (অবসরপ্রাপ্ত) মো. জালাল উদ্দিন জানান, ‘তিনি অনুমতি চাইলেও এখনো আমরা মহামান্য রাষ্ট্রপতির শিক্ষা সচিবের কাছ থেকে কোনো নির্দেশনা পাইনি।’

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

বাছাইকৃত সংবাদঃ

Comments are closed.